এইচটিএমএল সিএসএস জাভাস্ক্রিপ্ট পিএইচপি ওয়ার্ডপ্রেস কোরআন
ফোরাম
×

আলকোরআন

সূরা_ফাতিহা সূরা_বাকারা সূরা_ইমরান সূরা_নিসা সূরা_মায়েদা সূরা_আন’য়াম সূরা_আরাফ সূরা_আনফাল সূরা_তাওবা সূরা_ইউনুস সূরা_হুদ সূরা_ইউসুফ সূরা_রা’দ সূরা_ইবরাহীম সূরা_হিজর সূরা_নাহল সূরা_বনী-ইসরাঈল সূরা_কা’হফ সূরা_মারঈয়াম সূরা_ত্বা-হা সূরা_আম্বিয়া সূরা_হাজ্জ্ব সূরা_মু’মিনুন সূরা_নুর সূরা_ফুরকান সূরা_শু’য়ারা সূরা_নাম’ল সূরা_কাসাস সূরা_আনকাবুত সূরা_রূম সূরা_লুকমান সূরা_সাজদা সূরা_আহযাব সূরা_সা’বা সূরা_ফাতির সূরা_ইয়া-সীন সূরা_সাফফাত সূরা_সা’দ সূরা_যুমার সূরা_মু’মিন সূরা_হা-মীম সূরা_শূরা সূরা_যূখরুফ সূরা_দুখান সূরা_যাসিয়া সূরা_আহক্বাফ সূরা_মুহাম্মাদ সূরা_ফাতাহ সূরা_হুজুরাত সূরা_ক্বাফ সূরা_যারিয়া’ত সূরা_তুর সূরা_নাজম সূরা_ক্বামার সূরা_আর-রহমান সূরা_ওয়াক্বিয়া সূরা_হাদীদ সূরা_মুজাদালাহ সূরা_হাশর সূরা_মুমতাহিনা সূরা_সফ সূরা_জুম’য়া সূরা_মুনাফিক্বুন সূরা_তাগাবুন সূরা_তালাক সূরা_তাহরীম সূরা_মুলক সূরা_কালাম সূরা_হাক্বকাহ সূরা_মা’য়ারিজ সূরা_নূহ সূরা_জ্বীন সূরা_মুযযাম্মিল সূরা_মুদ্দাসসির সূরা_কিয়ামা’ত সূরা_দা’হর সূরা_মুরসালাত সূরা_নাবা সূরা_নাজিয়াত সূরা_আ’বাসা সূরা_তাকভীর সূরা_ইনফিতার সূরা_মুতাফফিফীন সূরা_ইনশিকাক সূরা_বুরূজ সূরা_তারিক সূরা_আ’লা সূরা_গাশিয়াহ সূরা_ফা’জর সূরা_বা’লাদ সূরা_শামস সূরা_লাইল সূরা_দুহা সূরা_আলাম-নাশরাহ সূরা_তীন সূরা_আলাক সূরা_ক্বদর সূরা_বাইয়্যেনাহ সূরা_যিলযাল সূরা_আদিয়্যাত সূরা_ক্বারিয়া সূরা_তাকাসুর সূরা_আসর সূরা_হুমাযা সূরা_ফীল সূরা_কুরাইশ সূরা_মাউন সূরা_কাউসার সূরা_কাফিরূন সূরা_ন’সর সূরা_লাহাব সূরা_ইখলাস সূরা_ফালাক সূরা_নাস -->

 

সূরা মুতাফফিফীন


بِسْمِ اللهِ الرَّحْمنِ الرَّحِيمِ
শুরু করছি আল্লাহর নামে যিনি পরম করুণাময়, অতি দয়ালু

وَيْلٌ لِّلْمُطَفِّفِينَ
যারা মাপে কম করে, তাদের জন্যে দুর্ভোগ,(সূরা মুতাফফিফীন ৮৩:১ )


الَّذِينَ إِذَا اكْتَالُواْ عَلَى النَّاسِ يَسْتَوْفُونَ
যারা লোকের কাছ থেকে যখন মেপে নেয়, তখন পূর্ণ মাত্রায় নেয়(সূরা মুতাফফিফীন ৮৩:২ )


وَإِذَا كَالُوهُمْ أَو وَّزَنُوهُمْ يُخْسِرُونَ
এবং যখন লোকদেরকে মেপে দেয় কিংবা ওজন করে দেয়, তখন কম করে দেয়।(সূরা মুতাফফিফীন ৮৩:৩ )


أَلَا يَظُنُّ أُولَئِكَ أَنَّهُم مَّبْعُوثُونَ
তারা কি চিন্তা করে না যে, তারা পুনরুত্থিত হবে।(সূরা মুতাফফিফীন ৮৩:৪ )


لِيَوْمٍ عَظِيمٍ
সেই মহাদিবসে,(সূরা মুতাফফিফীন ৮৩:৫ )


يَوْمَ يَقُومُ النَّاسُ لِرَبِّ الْعَالَمِينَ
যেদিন মানুষ দাঁড়াবে বিশ্ব পালনকর্তার সামনে।(সূরা মুতাফফিফীন ৮৩:৬ )


كَلَّا إِنَّ كِتَابَ الفُجَّارِ لَفِي سِجِّينٍ
এটা কিছুতেই উচিত নয়, নিশ্চয় পাপাচারীদের আমলনামা সিজ্জীনে আছে।(সূরা মুতাফফিফীন ৮৩:৭ )


وَمَا أَدْرَاكَ مَا سِجِّينٌ
আপনি জানেন, সিজ্জীন কি?(সূরা মুতাফফিফীন ৮৩:৮ )


كِتَابٌ مَّرْقُومٌ
এটা লিপিবদ্ধ খাতা।(সূরা মুতাফফিফীন ৮৩:৯ )


وَيْلٌ يَوْمَئِذٍ لِّلْمُكَذِّبِينَ
সেদিন দুর্ভোগ মিথ্যারোপকারীদের,(সূরা মুতাফফিফীন ৮৩:১০ )


الَّذِينَ يُكَذِّبُونَ بِيَوْمِ الدِّينِ
যারা প্রতিফল দিবসকে মিথ্যারোপ করে।(সূরা মুতাফফিফীন ৮৩:১১ )


وَمَا يُكَذِّبُ بِهِ إِلَّا كُلُّ مُعْتَدٍ أَثِيمٍ
প্রত্যেক সীমালংঘনকারী পাপিষ্ঠই কেবল একে মিথ্যারোপ করে।(সূরা মুতাফফিফীন ৮৩:১২ )


إِذَا تُتْلَى عَلَيْهِ آيَاتُنَا قَالَ أَسَاطِيرُ الْأَوَّلِينَ
তার কাছে আমার আয়াতসমূহ পাঠ করা হলে সে বলে, পুরাকালের উপকথা।(সূরা মুতাফফিফীন ৮৩:১৩ )


كَلَّا بَلْ رَانَ عَلَى قُلُوبِهِم مَّا كَانُوا يَكْسِبُونَ
কখনও না, বরং তারা যা করে, তাই তাদের হৃদয় মরিচা ধরিয়ে দিয়েছে।(সূরা মুতাফফিফীন ৮৩:১৪ )


كَلَّا إِنَّهُمْ عَن رَّبِّهِمْ يَوْمَئِذٍ لَّمَحْجُوبُونَ
কখনও না, তারা সেদিন তাদের পালনকর্তার থেকে পর্দার অন্তরালে থাকবে।(সূরা মুতাফফিফীন ৮৩:১৫ )


ثُمَّ إِنَّهُمْ لَصَالُوا الْجَحِيمِ
অতঃপর তারা জাহান্নামে প্রবেশ করবে।(সূরা মুতাফফিফীন ৮৩:১৬ )


ثُمَّ يُقَالُ هَذَا الَّذِي كُنتُم بِهِ تُكَذِّبُونَ
এরপর বলা হবে, একেই তো তোমরা মিথ্যারোপ করতে।(সূরা মুতাফফিফীন ৮৩:১৭ )


كَلَّا إِنَّ كِتَابَ الْأَبْرَارِ لَفِي عِلِّيِّينَ
কখনও না, নিশ্চয় সৎলোকদের আমলনামা আছে ইল্লিয়্যীনে।(সূরা মুতাফফিফীন ৮৩:১৮ )


وَمَا أَدْرَاكَ مَا عِلِّيُّونَ
আপনি জানেন ইল্লিয়্যীন কি?(সূরা মুতাফফিফীন ৮৩:১৯ )


كِتَابٌ مَّرْقُومٌ
এটা লিপিবদ্ধ খাতা।(সূরা মুতাফফিফীন ৮৩:২০ )


يَشْهَدُهُ الْمُقَرَّبُونَ
আল্লাহর নৈকট্যপ্রাপ্ত ফেরেশতাগণ একে প্রত্যক্ষ করে।(সূরা মুতাফফিফীন ৮৩:২১ )


إِنَّ الْأَبْرَارَ لَفِي نَعِيمٍ
নিশ্চয় সৎলোকগণ থাকবে পরম আরামে,(সূরা মুতাফফিফীন ৮৩:২২ )


عَلَى الْأَرَائِكِ يَنظُرُونَ
সিংহাসনে বসে অবলোকন করবে।(সূরা মুতাফফিফীন ৮৩:২৩ )


تَعْرِفُ فِي وُجُوهِهِمْ نَضْرَةَ النَّعِيمِ
আপনি তাদের মুখমন্ডলে স্বাচ্ছন্দ্যের সজীবতা দেখতে পাবেন।(সূরা মুতাফফিফীন ৮৩:২৪ )


يُسْقَوْنَ مِن رَّحِيقٍ مَّخْتُومٍ
তাদেরকে মোহর করা বিশুদ্ধ পানীয় পান করানো হবে।(সূরা মুতাফফিফীন ৮৩:২৫ )


خِتَامُهُ مِسْكٌ وَفِي ذَلِكَ فَلْيَتَنَافَسِ الْمُتَنَافِسُونَ
তার মোহর হবে কস্তুরী। এ বিষয়ে প্রতিযোগীদের প্রতিযোগিতা করা উচিত।(সূরা মুতাফফিফীন ৮৩:২৬ )


وَمِزَاجُهُ مِن تَسْنِيمٍ
তার মিশ্রণ হবে তসনীমের পানি।(সূরা মুতাফফিফীন ৮৩:২৭ )


عَيْنًا يَشْرَبُ بِهَا الْمُقَرَّبُونَ
এটা একটা ঝরণা, যার পানি পান করবে নৈকট্যশীলগণ।(সূরা মুতাফফিফীন ৮৩:২৮ )


إِنَّ الَّذِينَ أَجْرَمُوا كَانُواْ مِنَ الَّذِينَ آمَنُوا يَضْحَكُونَ
যারা অপরাধী, তারা বিশ্বাসীদেরকে উপহাস করত।(সূরা মুতাফফিফীন ৮৩:২৯ )


وَإِذَا مَرُّواْ بِهِمْ يَتَغَامَزُونَ
এবং তারা যখন তাদের কাছ দিয়ে গমন করত তখন পরস্পরে চোখ টিপে ইশারা করত।(সূরা মুতাফফিফীন ৮৩:৩০ )


وَإِذَا انقَلَبُواْ إِلَى أَهْلِهِمُ انقَلَبُواْ فَكِهِينَ
তারা যখন তাদের পরিবার-পরিজ নের কাছে ফিরত, তখনও হাসাহাসি করে ফিরত।(সূরা মুতাফফিফীন ৮৩:৩১ )


وَإِذَا رَأَوْهُمْ قَالُوا إِنَّ هَؤُلَاء لَضَالُّونَ
আর যখন তারা বিশ্বাসীদেরকে দেখত, তখন বলত, নিশ্চয় এরা বিভ্রান্ত।(সূরা মুতাফফিফীন ৮৩:৩২ )


وَمَا أُرْسِلُوا عَلَيْهِمْ حَافِظِينَ
অথচ তারা বিশ্বাসীদের তত্ত্বাবধায়করূপে প্রেরিত হয়নি।(সূরা মুতাফফিফীন ৮৩:৩৩ )


فَالْيَوْمَ الَّذِينَ آمَنُواْ مِنَ الْكُفَّارِ يَضْحَكُونَ
আজ যারা বিশ্বাসী, তারা কাফেরদেরকে উপহাস করছে।(সূরা মুতাফফিফীন ৮৩:৩৪ )


عَلَى الْأَرَائِكِ يَنظُرُونَ
সিংহাসনে বসে, তাদেরকে অবলোকন করছে,(সূরা মুতাফফিফীন ৮৩:৩৫ )


هَلْ ثُوِّبَ الْكُفَّارُ مَا كَانُوا يَفْعَلُونَ
কাফেররা যা করত, তার প্রতিফল পেয়েছে তো?(সূরা মুতাফফিফীন ৮৩:৩৬ )